লেবুর উপকারিতা

লেবুর ১২ টি উপকারিতা ও লেবুর ঔষধি গুণাগুণ

ফলের উপকারিতা

লেবু আমাদের অতি পরিচিত একটি ফল। ভিটামিন সি যুক্ত এই ফল সারা বছর আমাদের দেশে পাওয়া যায়! লেবুর মধ্য প্রাপ্ত এসিড জৈবএসিড। লেবুতে রয়েছে অতি উপকারি সাইট্রিক এসিড। চলুন দেখে নিই লেবুর উপকারিতা কি কি ?

অতি গরমে এক গ্লাস লেবু মিশ্রিত সরবত আপনাকে. মন ভুলানো সতেজ অনুভুতি এনে দিতে যথেষ্ঠ। আবার আমাদের মধ্যেই  অনেকেই আছেন. যাদের লেবু ছাড়া চলেই না। যারা প্রতি আহারেই লেবুর-রস দিয়ে খেতে খুবই পছন্দ করেন।

আবার অনেকেই আছে, যারা লেবু-চা খুবই পছন্দ করে। কারণ; লেবু-চা যেমন উপকারি, আবার তেমনি খেতেও দারুন। আসুন যেনে নিই শত ঔষধি গুন সমৃদ্ধ এই লেবুর কিছু উপকারিতা সমূহ।

জেনে নিই লেবুর উপকারিতা কি কিঃ

১। রুপ চর্চায় লেবুর বিশেষ উপকারিতা:

লেবুতে থাকে বিপুল পরিমাণ ভিটামিন সি । যা ত্বক ভালো রাখে! তাই কাঁচা হলুদ বা নিম পাতার সাথে লেবুর-রস মিশিয়ে ব্যবহার করলে বেশ কাজে দেয় ।

তাছাড়া লেবুর রস মুখে মাখলে , বুড়িয়ে যাওয়া বা ভাঁজ পরা ত্বক টানটান হয়ে যায় ।

২। খাদ্য হজমে সাহায্য করেঃ

লেবুর রস আমাদের শরীল থেকে বিষাক্ত পদার্থ বের করে দেয়! লেবুর রস আমাদের লালার সাথে মিশে খাদ্য হজমে সাহায্য করে ।

৩। মূত্র থলি ভালো রাখতে লেবুর বিশেষ উপকারিতা:

লেবু ব্যাকটেরিয়ার বিরুদ্ধে কাজ করে বিধায় মুত্র নালিতে ব্যাকটেরিয়া আক্রমণ করতে পারে না! লেবুর রস মূত্র বাড়াতে কাজ করে ।

৪। শ্বাসকষ্টের রোগীর জন্য লেবুর উপকারিতা:

লেবু কাশি কমাতে সাহায্য করে। এর ভিটামিন সি জ্বর এবং ঠান্ডা লাগার হাত থেকে মুক্তি দেয়; ফলে শ্বাসকষ্টের রোগীর জন্য লেবু খুব কার্যকর।

৫। অম্ল বা অ্যাসিডির সমস্যা থেকে রক্ষা পাইঃ

লেবু আমাদের শরীলের Ph [ power of hydrogen ] বা অম্ল-ক্ষারের মান ঠিক রাখে । ফলে; আমাদের পেটের অম্ল বা অ্যাসিডির সমস্যা থেকে রক্ষা পাই ।

৬। ব্রণের হাত থেকে রক্ষা পাইঃ

লেবু ব্যাকটেরিয়ার বিরুদ্ধে কাজ করে ফলে ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণে ত্বকে ব্রণ হতে পারে না; ফলে ব্রণের হাত থেকে আমরা রক্ষা পাই ।

ব্রণ হলে হাতি শুরো গাছের সাথে লেবু মিশিয়ে মুখের ব্রণে প্রলেপ দিলে; ব্রণ তারাতারি আরোগ্য লাভ করে ।

৭। ক্ষত স্থান ভালো করতে লেবুর উপকারিতা:

আমরা জানি লেবুতে সাইট্রিক এসিডের পাশাপাশি রয়েছে অ্যাসকরবিক এসিড । অ্যাসকরবিক এসিড ক্ষত স্থান ভালো করে ।

৮। দেয় সজীব নিঃশ্বাসঃ

এক গ্লাস লেবুর সরবত দিতে পারে প্রশান্তি ও তরতাজা ভাব । তবে সাবধান; লেবু মিশ্রিত সরবত পান করার পরে দাঁত ব্রাশ করবেন না। এতে দাঁতের ক্ষতি হয় ।

৯। উচ্চ রক্তচাপ কমাতে লেবুর উপকারিতা:

লেবুতে প্রচুর ভিটামিন সি এবং পটাশিয়াম আছে । এই ভিটামিন সি এবং পটাশিয়াম মিলে উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে ।

০। রক্তে কোলেস্টেরোল ঠিক রাখেঃ

রক্তে কোলেস্টেরোল জমলে লেবুর-রস তা দূর করে । উপকারি কোলেস্টেরোল HDL এর মাত্রা ঠিক রাখে; কলেস্ট্রেরোলের মাত্রা বেড়ে গেলে ধমনির পথ সরু হয়ে যায়। ফলে রক্ত ছাপ বেড়ে  স্ট্রক হতে পারে। তাই আমরা লেবু খেয়ে, স্ট্রোক নিয়ন্ত্রন করতে পারি।

১১। গলার সংক্রমণ দূর করতে লেবুর বিশেষ উপকারিতা:

লেবুতে ব্যাকটেরিযা প্রতিরোধী উপাদান থাকে। যার ফলে গলা ব্যথা বা মুখের ঘা দুর হয় ।

১২। ওজন কমাতে লেবুর বিশেষ উপকারিতা:

যারা ওজন কমাতে চান কিন্তু কিছুতেই ওজন কমাতে পারছেন না! লেবুর রস তাদের ওজন কমাতে পারে ম্যাজিকের মতো! এর জন্য আপনাকে প্রতিদিন সকালে হালকা গরম পানির সাথে মেথি ও লেবুর-রস মিশিয়ে; নিয়মিত পান করে যেতে হবে।

এছাড়া লেবুররস কাপড়ের কঠিন দাঁগ উঠাতে সাহায্য করে। লেবুর খোসা আলমারিতে কাপড়ের সথে রেখে দিলে; তা থেকে দীর্ঘ সময় সুভাস ছড়ায়।

উৎস- ইন্টারনেট

শেয়ার করুনঃ

1 thought on “লেবুর ১২ টি উপকারিতা ও লেবুর ঔষধি গুণাগুণ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *